অবৈধভাবে গর্ভপাত করাতে গিয়ে স্বাস্থ্যমন্ত্রীর হাতে ধরা পড়লো এক ডাক্তার

IMG-20190522-WA0034-01বিশ্বেশ্বর মজুমদার, শান্তিরবাজার, ২২ মে ।। প্রসূতি মায়ের গর্ভের সন্তান নষ্ট করতে গিয়ে হাতেনাতে ধরা পরলো এক ডাক্তার। ঘটনার বিবরনে জানাযায়, বুধবার সকাল আনুমানিক ১০ ঘটিকায় শান্তির বাজার মহকুমার অন্তর্গত বীরচন্দ্রমনু শহীদ মেমোরিয়াল হাসপাতালে হঠাৎ অভিযানে যান রাজ্যেত স্বাস্থ্যমন্ত্রী সুদীপ রায় বর্মন এবং স্বাস্থ্য দপ্তরের অন্যান্য আধিকারিকগণ। স্বাস্থ্যমন্ত্রী হাসপাতালে গিয়ে দেখতে পান এক প্রসূতি মায়ের গর্ভের সন্তান নষ্ট করতে ব্যস্ত ঐ হাসপাতালে কর্মরত চিকিৎসক তথা এম ও আই সি অজয় বিশ্বাস। এই গর্ভপাতের বিষয় নিয়ে সংবাদমাধ্যমের সামনে স্বাস্থ্য দপ্তরের D F W P M এস কে চাকমা জানান, উনাদের কাছে পূর্বে অভিযোগ ছিলো ডাঃ অজয় বিশ্বাস এই হাসপাতালে আসার পর দীর্ঘ আরাই বছর যাবৎ এই অবৈধ কাজের সাথে যুক্ত ছিলো। এই অভিযোগের ভিত্তিতে স্বাস্থ্যমন্ত্রী সহ আজকের এই অভিযান।

IMG-20190522-WA0035-01

চিকিৎসক অজয় বিশ্বাস।

এস কে চাকমা জানান, অজয় বিশ্বাস প্রতিনিয়ত দুই থেকে তিনটি গর্ভপাত করাতেন। দক্ষিন ত্রিপুরার সমস্ত প্রান্ত থেকে লোকজন প্রতিনিয়ত গর্ভপাতের জন্য অয়জ বিশ্বাসের কাছে আসেন। আর এইভাবে গর্ভের সন্তান নষ্ট করার জন্য ডাক্তার অজয় বিশ্বাস প্রতি মাথা পিছু ১২ থেকে ১৫ হাজার টাকা নিয়ে থাকেন বলে অভিযোগ। এই অভিযোগের সত্যতা ক্ষতিয়ে দেখে স্বাস্থ্যমন্ত্রীর আদেশে দপ্তর অজয় বিশ্বাসের নামে অবৈধ কাজ করার জন্য শান্তির বাজার থানায় মামলা দায়ের করবে বলে জানান। ডাক্তার অজয় বিশ্বাসের এই ধরনের কার্যকলাপ সকলের সামনে প্রকাশ্যে আসার পর সমগ্র শান্তিরবাজার এলাকায় ছিঃ ছিঃ রব উঠেছে।

FacebookTwitterGoogle+Share

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*