সরকারি শিক্ষকরা প্রাইভেট পরানোর ব্যাপারে মহকুমা শাসক ও বিদ্যালয় পরিদর্শকের দারস্ত বেকার যুবকরা

বিশ্বেশ্বর মজুমদার, শান্তিরবাজার, ২৩ জুন || রাজ্য সরকারের নির্দেশিকা অনুযায়ী সরকারী স্কুলে কর্তব্যরত শিক্ষকরা প্রাইভেট টিউশন করাতে পারবেন না। বিগত বছর ছাত্র-ছাত্রীদের ভবিষ্যৎতের কথা মাথায় রেখে সরকারি বিদ্যালয়ের শিক্ষক ও বেকার শিক্ষকরা যৌথভাবে আলাপ আলোচনা করে সরকারি বিদ্যালয়ে কর্মরত শিক্ষকদের এই বিষয় ছাড় দিয়েছেন। বর্তমানে এক বছর অতিক্রান্ত হবার পর দেখা যাচ্ছে সরকারি বিদ্যালয়ের শিক্ষকরা বিদ্যা ব্যবসার জন্য প্রাইভেট টিউশন চালিয়ে যাচ্ছে। বুধবার এই শিক্ষকদের বিরুদ্ধে শান্তিরবাজারের বেকার শিক্ষকের এক প্রতিনিধিদল শান্তির বাজার মহকুমা শাসক অর্ঘ্য সাহার নিকট এক লিখিত অভিযোগ নিয়ে যান। কিন্তু মহকুমা শাসকের নিকট অভিযোগ জানাতে গিয়ে হতাশাগ্রস্থ হয়ে ফিরতে হলো বেকার যুবকদের। এই নিয়ে সংবাদমাধ্যমের সন্মুখিন হয়ে বেকার যুবকরা জানান, মহকুমা শাসক উনাদের জানিয়েছেন সরকারি নির্দেশিকার কপি সহকারে অভিযোগ জমাদিতে। এইনিয়ে বেকার যুবকরা মহকুমা শাসক অর্ঘ্য সাহার কার্যকলাপে একরাশ ক্ষোভ উবরে দেন। উনাদের মতে সরকারি নির্দেশিকা কি কি রয়েছে তা মহকুমা শাসকের জানার কথা কিন্তু দেখা যাচ্ছে মহকুমা শাসক বেকার যুবকদের নিকট অর্ডার কপি চাইছে। অবশেষে বেকার যুবকরা মহকুমা শাসকের ব্যবহারে মর্মাহত হয়ে শান্তিরবাজার বিদ্যালয় পরিদর্শক প্রনব সরকারের নিকট আবেদন পত্রটি জমা দেন। এই বিষয়ে বিদ্যালয় পরিদর্শক প্রনব সরকার জানান, এই বিষয়ে তিনি উনার উর্ধতর কতৃপক্ষের নিকট জানাবেন। পরবর্তী সময় উনার উর্ধতর কর্তীপক্ষের নিকট থেকে যে আদেশ আসবে সে আদেশ অনুশারে কাজ করা হবে।

FacebookTwitterGoogle+Share

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*