সমাজের সব স্তরের কর্মকাণ্ডে দিব্যাঙ্গজনদের সমান অংশগ্রহণ সুনিশ্চিত করাই দিব্যাঙ্গজন দিবস পালনের মূল লক্ষ্যঃ তথ্যমন্ত্রী

আপডেট প্রতিনিধি, আগরতলা, ০৩ ডিসেম্বর || ৩’রা ডিসেম্বর ‘আন্তর্জাতিক দিব্যাঙ্গজন দিবস’। এই উপলক্ষে শনিবার আগরতলার রবীন্দ্র শতবার্ষিকী ভবনের ২নং প্রেক্ষাগৃহে রাজ্য সরকারের সমাজ কল্যাণ ও সমাজ শিক্ষা দপ্তরের অধীন পশ্চিম ত্রিপুরা জেলার সমাজ শিক্ষা জেলা পরিদর্শকের কার্যালয়ের উদ্যোগে ‘আন্তর্জাতিক দিব্যাঙ্গজন দিবস ২০২২’ উদযাপন করা হয়। এদিন মঙ্গলদ্বীপ প্রজ্জ্বলনের মাধ্যমে এই অনুষ্ঠানের শুভ সূচনা করেন রাজ্যের তথ্য ও সংস্কৃতি দপ্তরের মন্ত্রী সুশান্ত চৌধুরী।
এদিন তথ্যমন্ত্রী বলেন, সমাজের সব স্তরের কর্মকাণ্ডে দিব্যাঙ্গজনদের সমান অংশগ্রহণ সুনিশ্চিত করা ও উন্নয়নের সব ক্ষেত্রে তাদের অন্তর্ভুক্তি নিশ্চিত করাই এই দিবস পালনের মূল লক্ষ্য এবং উদ্দেশ্য। তিনি বলেন, আজকে আন্তর্জাতিক দিব্যাঙ্গজন দিবস উপলক্ষে আমার প্রত্যাশা, আমাদের দেশে দিব্যাঙ্গজনরা সমাজ এবং রাষ্ট্রের মূল ধারায় সম্পৃক্ত হবে এবং সকলের সম্মিলিত প্রচেষ্টায় সবার অধিকার সুনিশ্চিত করার মাধ্যমে বৈষম্যহীন সমাজ গঠিত হবে। এর মাধ্যমেই দেশের এবং রাজ্যের উন্নয়ন ত্বরান্বিত হবে। তথ্যমন্ত্রী আরো বলেন, দেশের বেশির ভাগ মানুষের মধ্যে প্রতিবন্ধিতা বিষয়ে নেতিবাচক ধারণা রয়েছে। যদিও এটা ঠিক যে, দিব্যাঙ্গজন ব্যক্তিরা যদি প্রয়োজনীয় সমর্থন পায় তবে তারা তাদের সক্ষমতা প্রমাণ করতে পারে এবং জাতীয় উন্নয়নে অবদান রাখতে পারে। দিব্যাঙ্গজনরা নানা ক্ষেত্রে বৈষম্যের শিকার হচ্ছে তাদের সম্পর্কে ভুল ধারণার কারণে। বিভিন্ন বিষয়ে দিব্যাঙ্গজনদের মতামত সাধারণত গ্রাহ্য করা হয় না এবং প্রায় ক্ষেত্রেই তাদের অধিকার লঙ্ঘন করা হয়, যেটা শেষ পর্যন্ত তাদেরকে উন্নয়নের মূল স্রোতধারা থেকে দূরে সরিয়ে দেয়, যা আজকের দিনে কোনোভাবেই কাম্য নয়। তিনি বলেন, জনসংখ্যার বিশাল একটি অংশকে উন্নয়নের বাইরে রেখে কোনো দেশের পক্ষে এগিয়ে যাওয়া কখনোই সম্ভব নয়। তাই উন্নয়নের স্বার্থে সবাইকে নিয়ে একটি সম্মিলিত সমাজ নির্মাণ করা অত্যাবশ্যক। জাতীয় উন্নয়নের বৃহত্তর স্বার্থেই দিব্যাঙ্গজনদের উন্নয়নের মূল স্রোতধারায় সম্পৃক্ত করা প্রয়োজন।
এদিন এই অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন পশ্চিম ত্রিপুরা জিলা পরিষদের সভাধিপতি অন্তরা সরকার দেব, সমাজ কল্যাণ ও সমাজ শিক্ষা দপ্তরের অধিকর্তা স্মিতা মল প্রমুখ।

FacebookTwitterGoogle+Share

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*