যে কারণে সেমিফাইনালে অস্ট্রেলিয়াকে হারাতে পারে ভারত

crckস্পোর্টস ডেস্ক ।। আগামীকাল সিডনি বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে মুখোমুখি হবে ভারত ও অস্ট্রেলিয়া। টুর্নামেন্টে টানা সাতটি ম্যাচ জিতে আত্মবিশ্বাসী ভারতীয় দল।
অস্ট্রেলিয়ার মাঠেই ব্যাগি গ্রিনদের হারিয়ে তৃতীয়বার বিশ্বকাপে ফাইনালে যেতে মরিয়া গতবারের চ্যাম্পিয়নরা। যদিও কাজটা খুবই কঠিন। ঘরের মাঠে চেনা পরিবেশে খেলতে নামবে ব্যাগি গ্রিন ব্রিগেড।
গ্রুপ লিগে নিউজিল্যান্ডের কাছে হেরে গিয়েছিল অসিরা। কিন্তু বাকি সব ম্যাচেই দাপট দেখিয়েছে তারা। কিন্তু পাঁচবারের চ্যাম্পিয়নদের হারিয়ে দেয়ার একটা ভালো সুযোগ থাকছে ধোনি বাহিনীর সামনে।

কেননা গত নভেম্বর থেকেই ডাউনআন্ডারে রয়েছে টিম ইন্ডিয়া। আর ধীরে ধীরে ধোনির নেতৃত্বে দলের পারফরম্যান্সের দুর্দান্ত উন্নতি হয়েছে। ঘরের মাঠেই অস্ট্রেলিয়া হারিয়ে দেয়ার সক্ষমতা ধোনিদের রয়েছে বলেই মনে করছেন অনেক বিশেষজ্ঞ। এ ক্ষেত্রে তারা কয়েকটি কারণও বিশ্লেষণ করেছেন।
বিশেষজ্ঞদের একাংশের বক্তব্য, সেমিফাইনালে ওঠার পথে পরপর সাতটা ম্যাচ জিতেছে ভারত। এ জয়ের পেছনে দলের বোলিং অ্যাটাকের অবদান অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে টেস্ট সিরিজ ও ত্রিদেশীয় সিরিজে ভারতীয় বোলারদের পারফরম্যান্স তীব্র সমালোচনার মুখে পড়েছিল।
কিন্তু বিশ্বকাপ শুরু হতেই ঘুরে দাঁড়িয়েছেন সামিরা। ৭ ম্যাচে ৭০ উইকেট নিয়ে তাক লাগিয়ে দিয়েছেন তারা। সেমিফাইনালে তাদের ফর্মে আচমকা ঘাটতি পড়ার তেমন কোনো কারণই নেই।

বোলারদের পাশাপাশি দুরন্ত ছন্দে রয়েছেন ব্যাটসম্যানরাও। শিখর ধবন, রোহিত শর্মা, আজিঙ্কা রাহানে,বিরাট কোহলি, সুরেশ রায়না, মহেন্দ্র সিংহ ধোনিরা রানের মধ্যেই রয়েছেন। কাজেই দল হিসেবে খেলতে পারলে ধোনিদের সেমিফাইনালে হোঁচট খাওয়ার সম্ভাবনা ক্ষীণ।
দ্বিতীয়ত, গত নভেম্বর থেকেই অস্ট্রেলিয়ায় রয়েছে দু’বারের চ্যাম্পিয়ন ভারত। এতদিনে সেখানকার পরিবেশের সঙ্গে ভালোই মানিয়ে নিয়েছে তারা। সিডনির পিচ স্পিনারদের সাহায্য করতে পারে। অস্ট্রেলিয়ার অন্য যেকোনো মাঠের তুলনায় সিডনির পিচ স্পিনারদের পক্ষে উপযুক্ত।
এমন হলে রবিচন্দ্রণ অশ্বিন ও রবীন্দ্র জাদেজারা অসি ব্যাটসম্যানদের বিপাকে ফেলতেই পারেন। অশ্বিন এখন পর্যন্ত টুর্নামেন্টে ১২টি এবং জাদেজা ৯ টি উইকেট নিয়েছেন।

অন্যদিকে অস্ট্রেলিয়ার হাতে সেরমক ভালো মানের কোনো স্পিনার নেই। দলের একমাত্র স্পিনার জেভিয়ার ডোহার্টি তেমন ফর্মেও নেই। গ্লেন ম্যাক্সওয়েলের পার্টটাইম বোলিং সামলাতে ভারতীয়দের অসুবিধা হওয়ার কথা নয়।
তৃতীয়ত, খেলাটা অস্ট্রেলিয়াতে হলেও সেমিফাইনালে সিডনির গ্যালারিতে নীল-লহরই দেখা যাবে বলে মনে করা হচ্ছে। দর্শক সংখ্যার বিচারে অসিদের টপকে যাবে ভারতীয় সমর্থকরাই। গ্যালারিতে ধোনির দলের হয়েই সমর্থন বেশি থাকবে।
আয়োজকদের ধারণা, ৪২ হাজার দর্শকাসনের সিডনিতে বিক্রি হওয়া টিকিটের বেশির ভাগই ভারতের সমর্থকরা কিনেছেন। তাই সিডনির পরিবেশ ম্যাচের দিন ইডেন গার্ডেনের মতো হয়ে যেতে পারে। ধোনির দলের উত্সাহ বাড়াবে।

সবমিলিয়ে পরিস্থিতিটা ভারতের পক্ষে খুবই অনুকূল। ধবন এরই মধ্যে জোড়া সেঞ্চুরি করে ফেলেছেন। কোয়ার্টার ফাইনালে সেঞ্চুরি করে ফর্মে ফিরেছেন রোহিত। যদিও প্রথম ম্যাচে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে সেঞ্চুরি ছাড়া কোহলির ব্যাটে রান দেখা যায়নি।
কিন্তু মাথায় রাখতে হবে, বড় ম্যাচে জ্বলে ওঠার ক্ষমতা রয়েছে দলের সহ-অধিনায়কের। এছাড়া বোলিং বিভাগও ছন্দে। কাজেই আগামীকাল দ্বিতীয়বার ফাইনালে যাওয়ার ছাড়পত্র আদায় করেই নিতে পারে টিম ইন্ডিয়া।

FacebookTwitterGoogle+Share

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*