কাঠের লগ বোঝাই গাড়িকে ধাওয়া করতে গিয়ে বেঘোরে প্রাণ গেল একাধিক গরুর, ব্যাপক উত্তেজনা

সাগর দেব, তেলিয়ামুড়া, ১১ মে || একাংশ বনদস্যুদের দাপটে দিনের পর দিন এক প্রকার উজার হয়ে যাচ্ছে সবুজ বন। বন দপ্তরের কর্মীদের চোখে একপ্রকার ধুলো দিয়ে দিকে দিকে রাত কিংবা দিন যেকোনো সময় বন দস্যুদের আস্ফলন অব্যাহত। অধিকাংশ ক্ষেত্রেই বন দপ্তরের দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মীরা বনদস্যুদের বিরুদ্ধে কোন ব্যবস্থা গ্রহণ করতে পারে না। তবে বৃহস্পতিবার অবৈধ কাঠের লক বোঝায় নাম্বার বিহীন একটি গাড়িকে বন আধিকারিকের নেতৃত্বে গতিরোধ করার চেষ্টা হয়। এই চেষ্টার মাঝে পড়ে একাধিক গরুর নির্মমভাবে মৃত্যু হওয়ার মতো ঘটনা যেমন সংঘটিত হয়, এর পাশাপাশি একাধিক গরু মারাত্মকভাবে আহতও হয়েছে।
ঘটনার বিবরণে জানা যায়, খোয়াইয়ের বন আধিকারিক নিশীথ চক্রবর্তী এদিন নিয়মিত পেট্রোলিং এর সময় কোন একটা জায়গা থেকে নাম্বার বিহীন লগ বোঝাই একটা গাড়িকে ধাওয়া করতে থাকেন। একটা সময় গাড়িটি কল্যাণপুর থানাধীন হাজারী বাড়ি হয়ে সিধাই মোহনপুরের দিকে চলে যায় বলে জানা গেছে। তবে এর ফাঁকে বন আধিকারিকের গাড়ির চাপা পড়ে সংশ্লিষ্ট এলাকার একাধিক গরু আঘাতপ্রাপ্ত হয়, এর মধ্যে কয়েকটার মৃত্যু যেমন হয় ঠিক এর পাশাপাশি একাধিক গরু বর্তমানে মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ছে বলেও জানা গেছে। গোটা ঘটনা চাক্ষুষ করে হাজারিবাড়ী এবং সন্নিহিত এলাকার সাধারণ জনজাতি অংশের মানুষরা বন আধিকারিককে ঘটনাস্থলে অবরোধ তৈরি করে ক্ষতিপূরণ দাবি করতে থাকেন। কিছুক্ষণের মধ্যেই সংশ্লিষ্ট এলাকায় ব্যাপক উত্তেজনাকর পরিস্থিতি তৈরি হয়। ঘটনার খবর পেয়ে তেলিয়ামুড়া মহকুমা পুলিশ আধিকারিক প্রসুন কান্তি ত্রিপুরা সহ কল্যাণপুর থানার সাব ইন্সপেক্টর প্রীতম দত্তের নেতৃত্বে বিশাল পুলিশ বাহিনী ঘটনাস্থলে ছুটে যায়। এরপর বন আধিকারিক রীতিমতো ক্ষতিপূরণ দেওয়ার ব্যাপারে হলফনামা প্রদান করলে স্থানীয়দের অবরোধ মুক্ত হয়। গোটা ঘটনা নিয়ে ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়েছে সর্বত্র।

FacebookTwitterGoogle+Share

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*