ইসরো এবং বিজ্ঞান ভারতীর যৌথ উদ্দ্যোগে চন্দ্রযানের বিভিন্ন দিকগুলি নিয়ে অন্তরীক্ষ অনুসন্ধান যাত্রা

বিশ্বেশর মজুমদার, শান্তিরবাজার, ৩০ নভেম্বর || শান্তিরবাজার দ্বাদশ শ্রেনী বিদ্যালয় মাঠে অনুষ্ঠিত হয় অন্তরীক্ষ অনুসন্ধান যাত্রা। ইসরো এবং বিজ্ঞান ভারতীর যৌথ উদ্দ্যোগে চন্দ্রযানের বিভিন্ন দিকগুলি ছাত্র ছাত্রীদের সামনে উপস্থাপনের জন্য একটি গাড়ী নিয়ে আসা হয়েছে। এই গাড়ীটির মধ্যে চন্দ্রযানের বিভিন্ন দিকগুলি রয়েছে। এই দিকগুলি সম্পর্কে বিভিন্ন বিদ্যালয়ের ছাত্র ছাত্রদীরে প্রশিক্ষন প্রদান করা হচ্ছে। এই অনুষ্ঠানটি বিগতদিনে দক্ষিন ত্রিপুরা জেলার সাব্রুম ও জোলাইবাড়ীতে করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার এক অনুষ্ঠানের মধ্যদিয়ে শান্তিরবাজার দ্বাদশ শ্রেনী বিদ্যালয় মাঠে অনুষ্ঠিত হয়। শান্তিরবাজার বিদ্যালয় পরিদর্শকের অধীনে সবকয়টি বিদ্যালয়ের ছাত্র ছাত্রীরা এই অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করে।
এই অনুষ্ঠান পরিচালনায় ছিলেন শান্তিরবাজার দ্বাদশ শ্রেনী বিদ্যালয়ের প্রিন্সিপল ইনচার্জ রুহিদাস শীল শর্মা। উনার চরম গাফলতির কারনে অনুষ্ঠানে আগত ছাত্র ছাত্রীদের বিশেষ অসুবিধার সন্মুখিন হতে হয়েছে বলে অভিযোগ।  অনুষ্ঠানে আগত ছাত্র ছাত্রীদের জন্য বসার কোনো ব্যবস্থা করা হয়নি। জানা যায়, বৃহস্পতিবার বিকেলেই এইমাঠে রাজ্যভিত্তিক বস্ত্র মেলা অনুষ্ঠিত হবে। বস্ত্র মেলার জন্য যে মঞ্চ তৈরি করা হয়েছে ও বসার জন্য যা কিছু চেয়ার নিয়ে আসা হয়েছে তা দিয়ে নিজ দায়িত্ব খালাস করেছে বিদ্যালয় কতৃপক্ষ। এছারা প্রখর রোদে দীর্ঘ সময় দাঁড়িয়ে ছাত্র ছাত্রীদের গাড়ীতে প্রবেশ করতে হচ্ছে। অভিঞ্জমহলের গুঞ্জন থেকে শোনা যাচ্ছিলো, ছাত্র ছাত্রীদের রোদে দাঁড় না করিয়ে যতজন গাড়ীতে প্রবেশ করা যায় ততজন করে ছাত্র ছাত্রীদের একের পর এক প্রবেশ করালে বাকিরা ছায়া জায়গাতে থাকতে পারতো।  তা না করে সকলকে রোদে দাঁড়িয়ে কোনোপ্রকার শৃঙ্খলা ছারা গাড়ীতে প্রদশনীর জন্য প্রবেশ করানো হয়। এছারা ছাত্র ছাত্রীদের জন্য পানীয় জলের ব্যবস্থাও করা হয়নি। এইনিয়ে বিদ্যালয় কতৃপক্ষের ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন করছে সকলে।
এদিন প্রদীপ প্রজ্বলনের মধ্যদিয়ে এই অনুষ্ঠানের শুভ সূচনা করেন শান্তিরবাজার পৌর পরিষদের চেয়ারম্যান সপ্না বৈদ্য। উদ্ভোধকের পাশাপাশি অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন শান্তিরবাজার বিধানসভা কেন্দ্রের বিধায়ক প্রমোদ রিয়াং, শান্তিরবাজার মহকুমাশাসক অভেদানন্দ বৈদ্য, শান্তিরবাজার পৌর পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান সত্যব্রত সাহা, শান্তিরবাজার বিদ্যালয় পরিদর্শক প্রনব সরকার, নেশ্যানাল কোডিনেটর স্পেশ অন হোইলস আকাশ পান্ডে, ডিস্ট্রিক কোডিনেটর স্পেশ অন হোইলস সন্তোষ নাথ সহ অন্যান্যরা।

FacebookTwitterGoogle+Share

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*