নেসলের থেকে ৬৪০ কোটি টাকা ক্ষতিপূরণ দাবি করল কেন্দ্র

mgmgmmgmmmজাতীয় ডেস্ক ।। ব্যবসায় অসাধু উপায় অবলম্বন, মিথ্যে লেবেল দেওয়া এবং বিজ্ঞাপনের মাধ্যমে মানুষকে বিভ্রান্ত করার অপরাধে ক্ষতিপূরণ হিসেবে ম্যাগি প্রস্তুতকারী সুইস সংস্থা নেসলের ভারতীয় ইউনিট থেকে ৬৪০ কোটি টাকা দাবি করল কেন্দ্র।
আর্থিক জরিমানা সহ অন্যান্য ব্যবস্থাগ্রহণের দাবি নিয়ে এদিন নেসলের বিরুদ্ধে জাতীয় উপভোক্তা বিবাদ প্রতিকার কমিশনে (এনসিডিআরসি) অভিযোগ দায়ের করে কেন্দ্রীয় উপভোক্তা বিষয়ক মন্ত্রক।
বস্তুত, এক গ্রাহকের দায়ের করা মামলাকে হাতিয়ার করেই এনসিডিআরসি-র দ্বারস্থ হয়েছে কেন্দ্র। কিন্তু তার সঙ্গে কেন্দ্র নিজেও অভিযোগ দায়ের করেছে। এর জন্য উপভোক্তা সুরক্ষা আইনের অন্তর্গত ১২-১-ডি ধরাকে প্রথমবার ব্যবহার করা হয়েছে বলেও জানা গিয়েছে। এই ধারা অনুযায়ী, কেন্দ্র ও রাজ্য সরকার— উভয়রই ক্ষমতা রয়েছে অভিযোগ দায়ের করার।
সূত্রের খবর, ম্যাগি-ইস্যুতে নেসলে ইন্ডিয়ার বিরুদ্ধে অভিযোগ সংক্রান্ত ফাইলকে অনুমোদন দিয়ে গতকালই সবুজ সঙ্কেত দিয়েছিলেন উপভোক্তা বিষয়ক মন্ত্রী রামবিলাস পাসোয়ান। এরপরই এদিন নেসলে ইন্ডিয়ার বিরুদ্ধে এনসিডিআরসি-তে অভিযোগ দায়ের করা হয়।
সেখানে নেসলের বিরুদ্ধে ব্যবসায় অসাধু উপায় অবলম্বন এবং বিজ্ঞাপনের মাধ্যমে মানুষকে বিভ্রান্ত করার অভিযোগ জানানো হয়েছে। পাশাপাশি, নেসলের বিরুদ্ধে অভিযোগ, ম্যাগির নমুনায় প্রভূত পরিমাণে ক্ষতিকারক মোনোসোডিয়াম গ্লুটামেট (এমএসজি) মেলা সত্ত্বেও প্যাকেটে তা উল্লেখ করা হয়নি। উপরন্তু, সংস্থা দাবি করেছে, ম্যাগি অত্যন্ত স্বাস্থ্যকর। এই মিথ্যে লেবেলিংয়ের দায়ে অভিযুক্ত করে সংস্থার কাছ থেকে ৬৪০ কোটি টাকা ক্ষতিপূরণের দাবি করা হয়েছে বলে সূত্রের খবর।
এদিন রামবিলাস জানান, ম্যাগি ন্যুডলসে খাদ্যের নিরাপত্তা সংক্রান্ত যে ঘাটতির অভিযোগ উঠেছে, তা অত্যন্ত গুরুতর। তিনি জানান, এনসিডিআরসি গোটা বিষয়টি খতিয়ে দেখে যথাযথ ব্যবস্থা নেবে।
প্রসঙ্গত, ম্যাগির নমুনায় মাত্রাতিরিক্ত সীসা ও মোনোসোডিয়াম গ্লুটামেট মেলায় দেশজোড়া বিতর্কের পর বিপজ্জনক ও ক্ষতিকারক আখ্যা দিয়ে গত ৫ জুন ম্যাগি ন্যুডলস নিষিদ্ধ করে কেন্দ্রীয় খাদ্য নিরাপত্তা নিয়ন্ত্রক সংস্থা এফএসএসএআই। ম্যাগি ন্যুডলসের ৯ ধরনের পণ্যই বাজার থেকে তুলে নেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়। ছেদ পড়ে যায় ২ মিনিট-ন্যুডলসের ইতিহাসে!

FacebookTwitterGoogle+Share

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*