আশাবাড়ি বিওপি’র জওয়ানদের দ্বারা আক্রান্ত স্কুল-কলেজ পড়ুয়া ছাত্র-ছাত্রীরা, রাস্তা অবরোধ

vlcsnap-error244আপডেট প্রতিনিধি, বক্সনগর, ১৯ নভেম্বর ৷। আশাবাড়ি বিওপি’র জওয়ানদের দ্বারা আক্রান্ত হয় কাঁটাতারের বেড়ার ওপার থেকে আসা স্কুল-কলেজ পড়ুয়া ছাত্র-ছাত্রীরা। বক্সনগর আর ডি ব্লকের অন্তর্গত রহিমপুর দ্বাদশ শ্রেণী বিদ্যালয় এর ছাত্র-ছাত্রীরা আশাবাড়ি বিএসএফ এর জওয়ানদের দ্বারা আক্রান্ত হওয়াকে কেন্দ্র করে বৃহস্পতিবার কলমচৌওড়া থানার সামনে বক্সনগর-সোনামুড়া যাওয়ার প্রধান রাস্তা অবরোধ করে।
আক্রান্ত ছাত্রছাত্রীরা জানায়, প্রায় সময়ই সকাল ছয়টা থেকে তাদের প্রাইভেট টিউশন থাকে। কিন্তু কর্তব্যরত বিএস এফ জওয়ানরা সিমান্তের গেট খুলেন ৮টা ৪৫ মিনিটে। ফলে আশাবাড়ি বিওপি’র কাঁটাতারের বেড়ার ১৫৮, ১৬০, ১৬৫, ১৬৬, ১৬৭ এবং ১৬৮ নম্বার গেট দিয়ে ছাত্র-ছাত্রীদের স্কুল কলেজ এবং টিউশনিতে আসা যাওয়াতে ভীষণ ভাবে সমস্যার সম্মুখীন হতে হচ্ছে। অনেক সময়ে
স্কুল ছুটি দেয়া হয় বেলা ১টায়। কিন্তু ছাত্র-ছাত্রীদের ঘন্টার পর ঘন্টা সময় পর্যন্ত সিমান্তের গেইটের সামনে অপেক্ষা করতে হয়। কাটা তারের এই গেইট খুলে দেওয়া এবং গেইট লাগানোটা যেন বিএসএফ এফের ইচ্ছাধীন ব্যাপার হয়ে দাঁড়িয়েছে। ফলে অনেক সময় দেখা গেছে ঘন্টার পর ঘন্টা অপেক্ষা করতে করতে ছাত্র-ছাত্রীরা সারাদিন না খেয়ে অসুস্থ হয়ে পড়ছে।
আশা বাড়ি থেকে রহিমপুর গৌরাঙ্গলা পর্যন্ত সবকটি গেটে এই সমস্যা প্রতিনিয়ত হয়ে চলছে বলে ছাত্র ছাত্রীদের তীব্র অভিযোগ। তবে জোয়ানদের এমন ঘটনায় সংবাদমাধ্যম সহ প্রশাসনিক উচ্চ পর্যায়ে বহু বার জানানো হলে কাজের কাজ কিছুই হচ্ছে না বলে তারা জানান। তাই অনেকটা বাধ্য হয়ে বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে দশটা থেকে সাড়ে বারোটা পর্যন্ত রহিমপুর এলাকার ছাত্র-ছাত্রীরা কলমচৌড়া থানার সামনে বক্সনগর-সোনামুড়া মেইন সড়ক অবরোধ করে। এদিনে ছাত্র ছাত্রীদের সঙ্গে ছিলেন রহিমপুর পঞ্চায়েত প্রধান আক্তার হোসেন। তাদের বক্তব্য, প্রধান আক্তার হোসেন নিজেও এই সমস্যা প্রত্যক্ষ করেন। এরপর তিনি পোস্ট কমান্ডার সি ই ও, এস ডি এম এবং ডি সি পি’র নিকট মোবাইলের মাধ্যমে বিষয়টি অবগত করেন। পরবর্তীতে বাধ্য হয়ে রাস্তা অবরোধ করায় কলমচৌড়া থানার ও সি ভারত দেববর্মা এবং বক্সনগর আর ডি ব্লকের ভিডিও ধ্রুতি শেখর রায়ের সমস্যা অতিশিঘ্রই সমাধানের প্রতিশ্রুতি মূলে অবরোধ তুলে নেওয়া হয়।
FacebookTwitterGoogle+Share

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

You may use these HTML tags and attributes: <a href="" title=""> <abbr title=""> <acronym title=""> <b> <blockquote cite=""> <cite> <code> <del datetime=""> <em> <i> <q cite=""> <strike> <strong>