সালমানের বাজরাঙ্গি ভাইজান শুটিং সেটে দুর্ঘটনা

salmanতারায়-তারায় ডেস্ক ।। সেটে রেডি হয়ে আছে লাইট, ক্যামেরা এবং আর্টিস্ট। পরিচালক বুঝে নিলেন দৃশ্যের অ্যাঙ্গেল। এরপরই তিনি তৈরি হলেন অ্যাকশন নির্দেশ দেয়ার জন্য। কিন্তু তার আগেই সপাটে কাউকে চড় মারার শব্দে চমকে উঠলেন তিনি। ছবির ভিলেন আদিত্য পাঞ্চলি এ অপকর্মটি করেছেন। তিনি জুনিয়র এক আর্টিস্টকে হঠাৎ করেই চড় মেরে বসলেন।
জুনিয়র ছেলেটির দোষ খুব বেশি না। ছেলেটি শুটিংয়ের সময় মোবাইল ফোন ব্যবহার করছিল। এই হচ্ছে তার অপরাধ। এ ঘটনায় বেশ বিরক্ত পরিচালক সঞ্জয় লীলা বনশালী। তিনি তার পরিচালিত আপকামিং ছবি বাজরাঙ্গী ভাইজানের শুটিং করছিলেন। শুটিং চলাকালে এ ঘটনাটি ঘটে।
অবশ্য পরিচালক তার সেটে শুটিং চলাকালীন সময়ে মোবাইলের ব্যবহার নিষিদ্ধ করেছেন। তার কথা মতো কাস্ট থেকে শুরু করে ইউনিটের সবাই শুটিং ফ্লোরে মোবাইল ব্যবহার করেন না। কিন্তু সম্প্রতি এ ছবির শুটিং চলাকালীন আদিত্য সেটে একজন জুনিয়ার আর্টিস্টকে মোবাইল ব্যবহার করতে দেখেন।
অল্পতে রক্ত গরম হয়ে যাওয়া এ অভিনেতা নিজেকে সামলাতে না পেরে সপাটে ছেলেটিকে মেরে বসলেন চড়। তবে সূত্রের খবর, এ জুনিয়ার আর্টিস্ট সেই সময় না মোবাইল ফোনে কথা বলছিল না কোনভাবে মোবাইলটি ব্যবহার করছিলেন।
এ ঘটনার পর ছবিতে কাজ করতে অস্বীকার করেন এ অভিনেতা। শেষে আদিত্য ক্ষমা চাওয়ায় পরিস্থিতি সামলে যায়। তবে এ ঘটনার জেরে পাক্কা ২ ঘণ্টা ছবির শুটিং বন্ধ ছিল। এ ছবিতে অভিনয় করেছেন বলিউডের রাজপুত্র সালমান খান।

FacebookTwitterGoogle+Share

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*