১১৩ মিনিটের মাথায় গোলে বাজিমাত জার্মানির, চতুর্থবার খেতাব জয় জোয়াকিম-এর দেশের

১৪ জুলাই/(NUT) : ১১৩ মিনিট অপেক্ষার পর ম্যাচের একমাত্র গোল৷ আর গোয়েতজের ওই গোলেই চতুর্থবার বিশ্বকাপের খেতাব জিতে নিল জার্মানি৷ আর্জেন্তিনাকে রিও-র মারাকানা স্টেডিয়ামে ১-০ গোলে হারিয়ে বিশ্বকাপ দেশে নিয়ে গেল জোয়াকিম লো-র দেশ।
ইউরোপের দলকে হারানোর জন্য ইউরোপীয় স্টাইলের ফুটবল। সেমিফাইনালে ডাচদের এই ধাঁচের ফুটবল খেলে হারিয়ে দিয়েছিল আর্জেন্তিনা। ফাইনালেও আলেক্সান্দ্রো সাবেয়ার দল শুরু করেছিল একইরকমভাবে।
মেসি, হিগুয়েনরা বারবার চাপে ফেলে দিচ্ছিলেন জার্মান ডিফেন্সকে।
প্রথম ২৫–৩০ মিনিট পর্যন্ত খেলার দখল ছিল আর্জেন্তিনার পায়েই। এরপরেই ম্যাচে ফিরতে থাকে জার্মানি।
প্রথমার্ধের শেষ ১০ মিনিটে জার্মানি এগিয়েও যেতে পারত। বিরতির ঠিক আগে গোলের সবথেকে কাছে চলে এসেছিল জার্মানরা।
দ্বিতীয়ার্ধে সুযোগ পেয়েছিল দুই দলই। গোল হয়নি, দুদলের সেরা ফুটবলাররাও যে চাপে রয়েছেন বোঝা যাচ্ছিল বারবার।
গোলশূন্য ৯০ মিনিটের পর এক্সট্রা টাইমের খেলা। একস্ট্রা টাইমেও ২৩ মিনিট পেরিয়ে গেছে। অনেকেই বলতে শুরু করেছেন তাহলে ২০০৬ এর পর ফের টাইব্রেকারে মীমাংসা হতে চলেছে বিশ্বকাপ ফাইনালের।
ঠিক এইসময়ই গোল। বাঁদিক থেকে ভেসে আসা ক্রস নিখুঁত রিসিভ করে জালে পাঠিয়ে দিলেন গোয়েতজ।
স্টেডিয়াম জুড়ে তখন জার্মান সমর্থকদের উল্লাসের ঢেউ।
গোলের পর খেলার বাকি ছিল ৭ মিনিট। ওই সময়ে সমতা ফেরাতে পারেনি আর্জেন্তিনা।
ম্যাচ জিতে চতুর্থবার বিশ্বকাপ জিতে নিল জার্মানরা। তিনবার খেতাব জিতেছিল তত্কালীন পশ্চিম জার্মানি। আর বার্লিনের পাঁচিল ভাঙার পর এই প্রথম খেতাব উঠল জার্মানদের ঘরে।
[সৈজন্যে : এবিপি নিউজ]

FacebookTwitterGoogle+Share

Comments are closed.