ভারতীয় নৌসেনায় প্রথম মহিলা পাইলট সহ যোগ দিলেন আরও ৩ মহিলা অফিসার

nouজাতীয় ডেস্ক ৷৷ প্রথম মহিলা পাইলট পেল ভারতীয় নৌসেনা। বুধবার, নৌসেনার প্রথম মহিলা বিমানচালক হিসেবে যোগ দিলেন উত্তরপ্রদেশের বাসিন্দা শুভাঙ্গী স্বরূপ। তবে, যুদ্ধবিমান নয়, শুভাঙ্গী মেরিটাইম রিকনেস্যান্স এয়ারক্র্যাফট বা সমুদ্রে নজরদারি বিমান চালাবেন। এর পাশাপাশি, আরও তিন মহিলা নৌসেনার অফিসার হিসেবে যোগ দিলেন। এঁরা হলেন—দিল্লির বাসিন্দা আস্থা সেহগল, পুদুচেরির রূপা এ এবং কেরলের শক্তি মায়া এস। তিনজনই নেভাল আর্মামেন্ট ইনস্পেক্টরেট (এনএআই)- বিভাগে দায়িত্ব পেয়েছেন। নৌসেনার তরফে জানানো হয়েছে, চার মহিলার বয়সই ২০-র কোটায়। সকলেই কোচির বিখ্যাত এঢ়িমালা নেভাল অ্যাকাডেমি থেকে প্রশিক্ষণ নিয়েছেন। বুধবার এক অনুষ্ঠানে চার মহিলা অফিসারকে বাহিনীতে অন্তর্ভুক্ত করা হয়। উপস্থিত ছিলেন নৌসেনা প্রধান অ্যাডমিরাল সুনীল লান্বা। শুভাঙ্গীর কাছে বাহিনীতে অন্তর্ভুক্ত হওয়াটা ছিল যেন পরিবারের পদানুসরণ করা। তাঁর বাবা নৌ-কম্যান্ডার। তবে, পাইলট হওয়াটা তাঁর কাছে স্বপ্ন সত্যি হওয়ার মতোই ঘটনা। শুভাঙ্গী প্রথম মহিলা পাইলট হলেও, বহু মহিলা নৌসেনার এভিয়েশন ব্রাঞ্চে কর্মরত রয়েছেন। তবে, তাঁরা মূলত এয়ার ট্রাফিক কন্ট্রোল অফিসার এবং বিমানের ‘অবজার্ভার’ হিসেবে কাজ করছেন। সাদার্ন নেভাল কম্যান্ডের মুখপাত্র কম্যান্ডার শ্রীধর ওয়ারিয়ার জানান, ‘অবজার্ভার’-এর দায়িত্ব হল বিমানের যোগাযোগ ও অস্ত্রের দায়িত্ব সামলানো। অন্যদিকে, এনএআই-এর দায়িত্ব হল নৌসেনার সমরাস্ত্রের প্রয়োজনীয়তা এবং মজুত সম্পর্কে তথ্য জোগাড় করা। নৌসেনার তরফে জানানো হয়েছে, চার মহিলাকে নিজ নিজ বিভাগে বিশেষ প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে। যেমন শুভাঙ্গী এখন হায়দরাবাদের এয়ার ফোর্স অ্যাকাডেমি থেকে প্রশিক্ষণ নেবেন। এই কেন্দ্র থেকে সামরিক বাহিনীর তিনটি বিভাগের পাইলটরা প্রশিক্ষণ নেন।
FacebookTwitterGoogle+Share

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*